২৬শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১০ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |
শিরোনাম :
চৌদ্দগ্রাম থানায় পুলিশের কল্যাণ সভা অনুষ্ঠিত চৌদ্দগ্রামে সাবেক রেলমন্ত্রী মুজিবুল হক মুজিবের পরিবার ও কনকাপৈত ইউনিয়ন আ”লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ডা,সরোয়ারদী মেম্বারের রোগ মুক্তি কামনায় দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত, কুমিল্লা চৌদ্দগ্রাম থানা পুলিশের অভিযানে ফেনসিডিল, গাঁজাসহ ৪জন আটক চৌদ্দগ্রামে বিলকিছ আলম পাঠাগার পরিদর্শন করলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার এস,এম,মুঞ্জুরুল হক কুমিল্লা চৌদ্দগ্রাম নিউ বিসমিল্লাহ সুইর্টস এর শুভ উদ্ধোধন চৌদ্দগ্রামে ভ্রাম্যমান আদালতে বিভিন্ন দোকানে ৮০ হাজার টাকা জরিমানা চাঞ্চল্যকর মামলায় পলাতক আসামী স্ত্রী রোকেয়া আক্তার শিউলী কে গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাব-৭, গুনবতীর দুবাই প্রবাসীকে হত্যা করে সন্তান নিয়ে রাতের আঁধারে উধাও স্ত্রী চৌদ্দগ্রামে হাজী সিদ্দিকুর রহমানের ইন্তেকাল, দাফন সম্পন্ন চৌদ্দগ্রামে মিডিয়া ব্যাক্তিত্ব শুভাকাক্ষী নিয়ে নৌকা ভ্রমণ ও মিলন মেলা ২০২১ অনুষ্ঠিত কুমিল্লায় থানাতে কর্মরত অবস্থায় পুলিশ সদস্যের মৃত্যু !
  • প্রচ্ছদ
  • অন্যান্য >> চট্টগ্রাম >> টপ নিউজ
  • কুমিল্লার নাঙ্গলকোটে সড়কে বেহাল দশা
  • কুমিল্লার নাঙ্গলকোটে সড়কে বেহাল দশা

    ষ্টাফ রিপোর্টার ঃ
    কুমিল্লার নাঙ্গলকোট উপজেলার প্রধান কয়েকটি সড়কের মধ্যে ঢালুয়া-মাহিনী-বাংগড্ডা সড়ক অন্যতম একটি প্রধান সড়ক। যা সড়ক ও জনপথ (সওজ) বিভাগের আওতাধীন এ সড়কের প্রায় ৩১ কিলোমিটার সড়কের পিচ-পাথর উঠে রাস্তায় দেখা দিয়েছে খানাখন্দক। বৃষ্টির পানি জমে সৃষ্টি হয়েছে বড় বড় গর্তের। এ যেন মরণফাঁদ!

    এদিকে এলাকাবাসির অভিযোগ, ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানগুলো রাস্তা নির্মাণ করার সময় নিম্নমানের সামগ্রী দিয়ে রাস্তা তৈরি করেন। যার কয়েক মাসের মাথায় পিচ-পাথর উঠে বড় বড় গর্ত হয়। আবার আগের রাস্তার মতন হয়ে যায়। এতে সরকারের কোটি কোটি টাকা গচ্চা যায়। কাজের কাজ কিছুই হয় না।

    সরেজমিনে ঘুরে দেখা যায়, এ ৩১ কিলোমিটার সড়কটির আলিয়ারা, মৌকরা, তুলাতুলি, ঝাটিয়াপাড়া, মনতলী, শ্রীরামপুর, শান্তির বাজার, মাহিনী, তালতলা, বাংগড্ডা বাজারসহ বিভিন্ন মোড়ে মোড়ে সড়কের পিচ-পাথর উঠে অসংখ্য ছোট বড় গর্তের সৃষ্টি হয়। আবার কোথাও কোথাও দেখা মিলে বড় বড় গর্তের। এসব গর্তে বৃষ্টির পানি জমে আরো বড় বড় গর্ত তৈরি হয়।
    প্রতিদিন এ সড়ক দিয়ে যানচলাচলের সময় যাত্রী ও ড্রাইভারদের কোন না কোন দূর্ঘটনার শিকার হতে হয়।

    এ সড়কটি চৌদ্দগ্রাম-লাকসাম উপজেলার আঞ্চলিক সড়কের বাঙ্গড্ডা বাজার বটতলা থেকে শুরু হয়ে ঢালুয়া বাইপাস এলাকায় গিয়ে চিড়রা-নাঙ্গলকোট সড়কে সাথে সংযোগ হয়। উপজেলার মধ্যে এটি একটি ব্যস্ততম সড়ক।সড়কটিতে প্রতিদিন হাজার হাজার যানবাহন চলাচল করে বিভিন্ন মালামাল নেয়া আসা করে। পাশাপাশি সাধারণ যাত্রীরা কম সময়ে মধ্যে কুমিল্লা-ঢাকা, ফেনী-চট্টগ্রামসহ বিভিন্ন অঞ্চলে চলাচল করে।

    দীর্ঘ এক বছর ধরে ভাঙা ও খানাখন্দকে ভরা সড়ক দিয়ে রিকশা-ভ্যান, অটো ও সিএনজি, বাস ও ট্রাক চালকরা ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করছেন তারা।

    এ বিষয়ে সিএনজি এক সাধারণ যাত্রী আলিয়ারা গ্রামের আজগর হোসেন বলেন, তার স্ত্রীকে নিয়ে বোনের শ্বশুর বাড়িতে বেড়াতে যাচ্ছেন। রাস্তার মধ্যে এতো গর্ত তৈরি হয়েছে। সিএনজি যোগে যাতায়াতের ফলে কোমরে ব্যাথা হয়। একবার নিম্নমানের সামগ্রী দিয়ে রাস্তা সংস্কার করে গেছে। এখন আর কবে আসে এই কাজ করার জন্য আল্লাহ ভালো জানেন।

    এ সড়কের সিএনজি চালক বাংগড্ডা উত্তর পাড়া গ্রামের বাসিন্দা জসিম বলেন, প্রতিদিন গাড়ির একটা না একটা ভাঙ্গে। রাস্তায় এতো গর্ত! কয়টা বাঁচাবো। এমনিতে প্রতিদিন ১৫-২০ টাকার ব্যাথার ঔষধ খেতে হয়। একবার কাজ করে গেলে কেউ খবরও নিতে আসেনা। আমাদের থাকতে হয় রাস্তায়। ভাঙা আর গর্ত হলে কি করবো। পেটের দায়ে গাড়ি চালাতে হয়।

    শাহ আলী সুপার বাসের চালক সুমন জানান, হাসানপুর থেকে কুমিল্লার উদ্দেশ্যে সকালে বাস ছাড়ি। যেতে যেতে প্রায় দুপুর হয়ে যায়। কি করবো রাস্তা এতো খারাপ। এক ঘন্টার রাস্তা তিন ঘন্টা লাগে। আবার দূর্ঘটনার আসংকাও বেশি থাকে। জোরে বাস চালাতে পারি না।

    এ বিষয়ে জানতে চাইলে লাকসাম সওজ বিভাগের উপ-সহকারি প্রকৌশলী আজিম উদ্দিন বলেন, বর্তমানে পর্যাপ্ত পরিমানে নির্মাণ সামগ্রী না থাকায় সংস্কার কাজ করা যাচ্ছে না। আগামী দু-এক মাসের মধ্যে ওই ৩১ কিলোমিটার সড়কের সংস্কার কাজ করা হবে।

    আরও পড়ুন

    error: Content is protected !!