২৭শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১১ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |
শিরোনাম :
চৌদ্দগ্রাম থানায় পুলিশের কল্যাণ সভা অনুষ্ঠিত চৌদ্দগ্রামে সাবেক রেলমন্ত্রী মুজিবুল হক মুজিবের পরিবার ও কনকাপৈত ইউনিয়ন আ”লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ডা,সরোয়ারদী মেম্বারের রোগ মুক্তি কামনায় দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত, কুমিল্লা চৌদ্দগ্রাম থানা পুলিশের অভিযানে ফেনসিডিল, গাঁজাসহ ৪জন আটক চৌদ্দগ্রামে বিলকিছ আলম পাঠাগার পরিদর্শন করলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার এস,এম,মুঞ্জুরুল হক কুমিল্লা চৌদ্দগ্রাম নিউ বিসমিল্লাহ সুইর্টস এর শুভ উদ্ধোধন চৌদ্দগ্রামে ভ্রাম্যমান আদালতে বিভিন্ন দোকানে ৮০ হাজার টাকা জরিমানা চাঞ্চল্যকর মামলায় পলাতক আসামী স্ত্রী রোকেয়া আক্তার শিউলী কে গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাব-৭, গুনবতীর দুবাই প্রবাসীকে হত্যা করে সন্তান নিয়ে রাতের আঁধারে উধাও স্ত্রী চৌদ্দগ্রামে হাজী সিদ্দিকুর রহমানের ইন্তেকাল, দাফন সম্পন্ন চৌদ্দগ্রামে মিডিয়া ব্যাক্তিত্ব শুভাকাক্ষী নিয়ে নৌকা ভ্রমণ ও মিলন মেলা ২০২১ অনুষ্ঠিত কুমিল্লায় থানাতে কর্মরত অবস্থায় পুলিশ সদস্যের মৃত্যু !
  • প্রচ্ছদ
  • Uncategorized >> অন্যান্য >> চট্টগ্রাম >> টপ নিউজ >> ব্যবসা বানিজ্য
  • চৌদ্দগ্রামে নিত্যপণ্যের বাজার লাগামহীন,ক্রয় ক্ষমতার বাইরে চলে গেছে সাধারণ মানুষের।
  • চৌদ্দগ্রামে নিত্যপণ্যের বাজার লাগামহীন,ক্রয় ক্ষমতার বাইরে চলে গেছে সাধারণ মানুষের।

    আনিছুর রহমান ঃ
    কুমিল্লা চৌদ্দগ্রামে নিত্যপণ্যের বাজার যেন লাগামহীন , সব ধরণের সবজির বাজারে আগুন লাগায় ক্রয় ক্ষমতার বাইরে চলে গেছে সাধারণ মানুষের। দিশেহারা সাধারন মানুষ,

    গত এক সাপ্তাহে সবজির দাম বেড়েছে কেজি প্রতি ২৫/৩০ টাকা। কাঁচা মরিচ, আলু, করলা, টমেটো, শিম, ঝিংগাসহ সব সবজির মূল্য দ্বিগুণ হয়েছে বলে জানিয়েছে সাধারন ক্রেতারা।

    ছোট-বড় বিভিন্ন বাজার ঘুরে দেখা গেছে, বাজারে কাঁচা মরিচ প্রতি কেজি বিক্রি হচ্ছে ২২০/২৪০ টাকা দরে। প্রতি কেজি খুচরা আলু ৪৫/৫০ টাকা, শীম ১০০/১২০, টমেটো ১০০/১৩০, শশা ৫০/৬০, চালকুমড়া মাঝারী পিচ ৪৫, পটল ৬০/৭০, ঢেড়স ৪৫/৫৫, ঝিঙ্গা ৫০/৬০, করলা ৮০/১০০, বেগুন ৮০/১০০, ফুলকপি ১০০/১২০টাকা, কাকরল ৯০/১০০, পেঁপে ৩০/৪০, কচুমুখী ৪০/৫০, কাঁচকলা হালি ৩০/৩৫, লেবু হালি ৩৫/৪০, লাল শাক ৪০/৫০ আঁটি, পুইশাক ৪০/৫০ টাকা আঁটি দরে বিক্রি হচ্ছে। মাসকলাই ৭৫/৮০ টাকা, মসুর ডাল (মোটা) ৭০/৭৫ টাকা, (ছোট দানা) ১০০/১২০ টাকা, আদা ১০০/১২০, রসুন ৯০/১০০ টাকা, পেয়াজ প্রকার ভেদে ৯০/১১০ টাকা। তবে ভোজ্য তেলের দাম লিটার ১১০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

    চালের বাজার ঘুরে দেখা গেছে, প্রকার ভেদে বস্তা প্রতি ১০০/৩০০ টাকায় বেড়েছে। এ বাড়তি দামের কারন হিসাবে পাইকারী আড়ৎদারকে দায়ী করছেন খুচরা ব্যবসায়ীরা।
    আর ব্যবসায়ী আবুল কালাম বলেন, আমরা চাউলে প্রতি বস্তায় ১০০-৫০ টাকা লাভকরছি। এর বেশি কিছু না, পাইকারী ব্যবসায়ীরা আমাদের থেকে বেশি রাখছে।

    আরও পড়ুন

    error: Content is protected !!